বড় খবর:প্রার্থী বদল করলো গেরুয়া শিবির, ১৩ আসনে প্রার্থী তালিকা ঘোষণা

রাজ্যের আরও ১৩টি আসনের জন্য প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করল বিজেপি। সেই সঙ্গে বদলে দেওয়া হল কাশীপুর-বেলগাছিয়া এবং চৌরঙ্গী কেন্দ্রের প্রার্থীদের। এই দুই কেন্দ্রেই প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করে অস্বস্তিতে পড়তে হয়েছিল গেরুয়া শিবিরকে। চৌরঙ্গী কেন্দ্র থেকে টিকিট পেয়েও বিজেপিতে যোগদানের কথা অস্বীকার করেন প্রাক্তন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্রর স্ত্রী শিখা মিত্র।

কাশীপুর-বেলগাছিয়ায় একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটান তৃণমূলের বিদায়ী বিধায়ক মালা সাহার স্বামী তরুণ সাহা। এই দুই কেন্দ্রেই এবার প্রার্থী বদলাল গেরুয়া শিবির। কাশীপুর-বেলগাছিয়ায় প্রার্থী হলেন শিবাজী সিংহরায়। চৌরঙ্গী কেন্দ্রে প্রার্থী হচ্ছেন দেবব্রত মাজি।

অন্যান্যদের মধ্যে উল্লেখযোগ্যভাবে গাইঘাটা থেকে প্রার্থী হলেন মতুয়া মহাসঙ্ঘের অন্যতম সদস্য সুব্রত ঠাকুর। সাংসদ শান্তনু ঠাকুরের দাদা সুব্রত। প্রার্থী তালিকায় মতুয়াদের প্রতিনিধিত্ব না থাকা নিয়ে দিন দুই আগে থেকেই অসন্তোষ চলে আসছিল বিজেপির অন্দরে। মতুয়াদের দাবি জানতে গতকালই বনগাঁর সাংসদ সুব্রত ঠাকুরের সঙ্গে বৈঠক করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তারপরই তালিকায় জায়গা দেওয়া হল সুব্রত ঠাকুরকে।

এই পরিস্থিতিতে  বাগদা থেকে বিদায়ী বিধায়ক বিশ্বজিত দাসকে প্রার্থী করল গেরুয়া শিবির। অর্থনীতিবিদ অশোক লাহিড়ীকে আলিপুরদুয়ার থেকে সরিয়ে প্রার্থী করা হল বালুরঘাটে। পাহাড়ের তিন আসনে জিএনএলএফের সঙ্গে জোটে প্রার্থী ঘোষণা করল গেরুয়া শিবির। প্রার্থী তালিকায় জিএনএলএফ প্রভাব স্পষ্ট। দার্জিলিং কেন্দ্র থেকে পদ্ম প্রতীকে লড়ছেন বিদায়ী বিধায়ক নীরজ জিম্মা। ইনি আসলে জিএনএলএফ নেতা।

এক নজরে বিজেপির প্রার্থীদের নাম:

  • কালিম্পং: ডঃ সুভা প্রধান
  • দার্জিলিং: নীরজ জিম্মা
  • কার্শিয়ং: বিষ্ণুপ্রসাদ শর্মা
  • করণদীঘি: সুভাষ সিনহা
  • ইটাহার: অমিত কুমার কুণ্ডু
  • বাগদা: বিশ্বজিত দাস
  • বনগাঁ উত্তর: অশোক কীর্তনিয়া
  • গায়ঘাটা: সুব্রত ঠাকুর
  • বালুরঘাট: অশোক লাহিড়ী
  • রাসবিহারী: লেফটেন্যান্ট জেনারেল সুব্রত সাহা
  • বহরমপুর: সুব্রত মৈত্র
  • চৌরঙ্গী: দেবব্রত মাজি
  • কাশীপুর-বেলগাছিয়া: শিবাজী সিংহরায়